Skip to content Skip to sidebar Skip to footer

শাওমি বাটন মোবাইল দাম বাংলাদেশ

বর্তমানে স্মার্টফোনের জগতে ফিচার ফোন নাই বললেই চলে। তবে কলিং মেসেজিং সুবিধার জন্য অনেকেই ফিচার ফোন বা বাটন ফোন ব্যবহার করে।
শাওমি বাটন মোবাইল দাম বাংলাদেশ

বাটন বা ফিচার ফোন ব্যবহার করে এমন পাওয়া খুবই মুশকিল। তবে এন্ড্রয়েড স্মার্টফোনের পাশাপাশি আকারে ছোট এবং ওজনে কম হওয়ায় অনেকেই ফিচার ফোন ব্যবহার করে।

শুধু কলিং এবং মেসেজিং সুবিধা দেয়া ফিচার ফোন তৈরি করা কোম্পানি গুলোর মধ্যে আইটেল, সিম্ফনি ও ওয়ালটন জনপ্রিয়। কিন্তু এই সব বাটন ফোনগুলোতে ইন্টারনেট ব্রাউজিং এবং স্মার্টফোনের সুবিধা ভোগ করার জন্য শাওমি এবং নোকিয়া উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন বাটন মোবাইল রিলিজ করে থাকে।

আজকে এ আর্টিকেলে শাওমি বাটন মোবাইল দাম বাংলাদেশ সম্পর্কে জানব। শাওমি বাটন মোবাইলের দাম ও ছবি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

শাওমি বাটন মোবাইল দাম বাংলাদেশ

1.Xiaomi Qin 1s

সেরা বাটন মোবাইল

এই শাওমি বাটন মোবাইল দাম 2 হাজার 790 টাকা। এই শাওমি বাটন মোবাইলে ব্যবহার করা হয়েছে টুজি, থ্রিজি, ফোরজি ইন্টারনেট সুবিধা। যার কারনে মোবাইলটি দিয়ে ইন্টারনেট ব্রাউজিং সহজ হবে।

তাছাড়া এই মোবাইলে হটস্পট ও ওয়াইফাই সুবিধাও রয়েছে। যার কারনে আপনার স্মার্টফোনের উপর চাপ কমাতে এই ফোন দিয়ে হটস্পট ব্যবহার করতে পারবেন।

মোবাইলটিতে রয়েছে ডুয়াল স্লট যার মধ্যে দুইটি সিম অথবা একটি সিম এবং একটি এসডি কারৃড ব্যবহার করা যাবে।

2.8 ইঞ্চি 320 × 240 রেজুলেশন ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। ডিস্প্লে সুরক্ষার জন্য রয়েছে কর্নিং গরিলা গ্লাস। তবে কত কর্নিং গরিলা গ্লাস ব্যবহার করা হয়েছে জানা যায়নি। ভালো ভিসুয়াল এক্সপিরিয়েন্স দেয়ার জন্য রয়েছে এইচডি আইপি এস স্ক্রিন।


Spreadtrum SC9820 ব্যবহার করা হয়েছে চিপসেট হিসেবে। ARM Mali T82 ব্যবহার করা হয়েছে জিপিইউ হিসেবে। ডুয়াল কোর 64 বিট প্রসেসর ব্যবহৃত হয়েছে‌। প্রাইমারি ক্লোক স্প্রিড 1.2 গিগাহার্জ।

ইন্টারনাল ষ্টোরেজ অর্থাৎ ফোন মেমরি রয়েছে 512 এমবি। এবং রেম হিসাবে রয়েছে 256 এমবি। মাইক্রো এসডি কার্ড ব্যবহার করে ষ্টোরেজ বারানোর সুবিধা রয়েছে।

তবে এই ফোনটিতে সামনে ও পিছনে ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়নি। তাই মোবাইলটি দিয়ে ছবি তুলার ক্ষেত্রে কোন রুপ সুবিধা পাওয়া যাবে না। তাছাড়া এ মোবাইলে ফ্লাস লাইট সুবিধাও দেওয়া হয়নি।

1480 এম এইচ রিমোভ করা যাবে না লিথিয়াম পরিমার ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। যার মাধ্যমে কলিং করার ক্ষেত্রে একটানা 420 মিনিট ব্যাক আপ পাওয়া যাবে। ব্যাটারি চার্জ দেয়ার জন্য কোন ফাষ্ট চার্জিং সুবিধা দেয়া হয়নি।

এই মোবাইলে ব্যবহার করা হয়েছে টাইপ সি পৌর্ট। তবে কোন ইয়ারফোন জ্যাক ব্যবহার করা হয়নি। ইয়ারফোনের বিকল্প হিসেবে আপনি ব্লুটুথের মাধ্যমে গান শুনতে পারবেন।

অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হয়েছে। তবৈ কোন ভার্সন অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হয়েছে জানা যায়নি।

এই মোবাইলে MP3, OGG, AMR, WAV ফরমেটের অডিও সাপোর্ট করে এবং 3GP, MP4, MPEG ফরমেটের ভিডিও সাপোর্ট করে।

গুগল ট্রান্সলেট মতো অ্যাপ ব্যবহার করা হয়েছে। মোবাইলটি দিয়া ইউটিউবে অনায়াসে এইচডি কোয়ালিটি ভিডিও প্লে করা যাবে।

Xiaomi Qin 1s ফিচারসঃ

  • 1480 এম এইচ ব্যাটারি।
  • 256 এমবি রেম এবং 512 এমবি ইন্টারনাল ষ্টোরেজ।
  • 2.8 ইঞ্চি 320 × 240 রেজুলেশন ডিসপ্লে
  • অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম।
  • গুগল ট্রান্সলেট, ইউটিউবের মতো অ্যাপ।
  • Spreadtrum SC9820 চিপসেট।

শেষ কথা

এই শাওমি বাটন মোবাইলটি বাংলাদেশে রিলিজ করা হয়েছিল 2018 সালে তাই এই মোবাইলটি এখনো বাংলাদেশ মোবাইল বাজারে উপলব্ধ আছে কিনা বলা যাচ্ছে না।

আশাকরি আর্টিকেলটি Qin 1s শাওমি বাটন মোবাইলটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন।
Sharif ahmed
Sharif ahmed ব্লগিং করা আমার স্বপ্ন। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে বাংলায় টেকনোলজি নিয়ে ব্লগিং শুরু করেছি।

Post a Comment for "শাওমি বাটন মোবাইল দাম বাংলাদেশ"