৫০০ টাকার মোবাইল | ৫০০ টাকার মধ্যে বাটন মোবাইল বাংলাদেশ

আপনি যদি একটি ৫০০ টাকার মোবাইল নিয়ে জানার আগ্রহ প্রকাশ করছেন তাহলে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য। 500 টাকার স্কিন টাচ মোবাইল খুঁজে থাকলে সেটা আপনার ভুল হবে কারন 500 টাকার টাচ মোবাইল নেই। তবে আপনি পুরাতন ফোন ৫০০ টাকায় পেতে পারেন বিভিন্ন পুরান মার্কেট থেকে। 

৫০০ টাকার মোবাইল

৫০০ টাকার মধ্যে বাটন মোবাইল বাংলাদেশ নিয়ে জানতে চাইলে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য উপকারে আসবে কারন এখানে ৫০০ টাকার মধ্যে মোবাইল বাংলাদেশ নিয়ে যেই মোবাইল গুলো নিয়ে লেখবো সেগুলো হলো বাটন মোবাইল।

৫০০ টাকার মোবাইল | ৫০০ টাকার মধ্যে বাটন মোবাইল

500 টাকার টাচ মোবাইল নেই যদি থাকতো তাহলে আমরা সেটা নিয়ে আপনাদের জানাতে চেষ্টা করতাম। ৫০০ টাকার মধ্যে বাটন মোবাইল বাংলাদেশ পাওয়া যায় তবে তাও খুবই কম। ৫০০ টাকার মধ্যে কোন মোবাইন নেই তাই আমরা ৫০০ টাকার চেয়ে একটু বেশি দামি 700 টাকার মধ্যে মোবাইল গুলো নিয়ে আপনাদেরকে জানাব।

1. Maximus M79 - ৫০০ টাকার মোবাইল

Maximus M79 - ৫০০ টাকার মোবাইল

এই মোবাইলটির দাম বাংলাদেশে 750 টাকা। মোবাইলটিতে দেয়া হয়েছে 1000 এমএইচ লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি। এই ব্যাটারি দ্বার 8-10 ঘন্টা ব্যাকআপ সুবিধা পাওয়া যাবে।


মোবাইলটিতে 2 জি নেটওয়ার্ক ব্যান্ড ব্যবহার করা হয়েছে। যার GSM 900MHz/1800MHz। 1.77 ইঞ্চি QVGA ডিসপ্লে দেয়া হয়েছে। 2 জিবি রেম ব্যবহার করা হয়েছে সাথে দেয়া হয়েছে 32 জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। তাছাড়া এক্সটার্নাল মাইক্রো এসডি কার্ড দিয়ে স্টোরেজ 16 জিবি পর্যন্ত বাড়াতে পারবেন।

পিছনে একটি ডিজিটাল ক্যামেরা রয়েছে। তবে সামনে নেই কোন ক্যামরা। যদিও সামনের ক্যামেরা বাটন ফোনে অতটা জরুরি না। তারপরেও দিলে সৌন্দর্য বৃদ্ধি পায়‌।

রেকর্ড করার সুবিধা পাবেন মোবাইলটা দিয়ে। অডিও রেকর্ড এবং ভিডিও রেকর্ড দুইটাই। করতে পারবেন। মোবাইলটিতে মাইক্রো USB সাপোর্টে করে তাই ফাইল আদান প্রদান করা যাবে সহজেই। 


সিম ব্যবহার করতে পারবেন দুইটি। কারন মোবাইলে সিম ব্যবহার করার দুইটি স্লট ঘার্ড আছে। Mp3 ও Wav ফরমেট অডিও গান শুনতে এই মোবাইল দিয়ে। এছাড়া ভিডিও দেখতে পারবেন mp4, AVI, MOV ফরমেটের।

মোবাইলটির উচ্চতা 140 মিলিমিটার ও প্রস্থ 40 মিলিমটার তাই মোবাইল ব্যবহারে কোন অসুবিধার সম্মুখীন হতে হবে না। টর্চলাইট, ব্লাকলিস্ট ইত্যাদি সুবিধা দেয়া হয়েছে মোবাইলটিতে‌। সর্বোচ্চ ৫০০ কন্টাক্ট সেভ করতে পারবেন।

Maximus M79 ফিচারসঃ 

  • 1000 এমএইচ লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি।
  • 1.77 ইঞ্চি ডিসপ্লে
  • টর্চলাইট, ব্লাকলিস্ট ইত্যাদি সুবিধা
  • মাইক্রো USB সাপোর্টে
  • অডিও ভিডিও রেকর্ড

2.Maximus M84 ৭০০ টাকার মোবাইল

Maximus M84 - ৫০০ টাকার মোবাইল

এই মোবাইলটির দাম বাংলাদেশে 700 টাকা। মোবাইলটিতে দেয়া হয়েছে 800 এমএইচ লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি। এই ব্যাটারি দ্বার 8-10 ঘন্টা ব্যাকআপ সুবিধা পাওয়া যাবে।

রেকর্ড করার সুবিধা পাবেন মোবাইলটা দিয়ে। অডিও রেকর্ড এবং ভিডিও রেকর্ড দুইটাই। করতে পারবেন। মোবাইলটিতে মাইক্রো USB সাপোর্টে করে তাই ফাইল আদান প্রদান করা যাবে সহজেই। 


পিছনে একটি ডিজিটাল ক্যামেরা রয়েছে। তবে সামনে নেই কোন ক্যামরা। যদিও সামনের ক্যামেরা বাটন ফোনে অতটা জরুরি না। তারপরেও দিলে সৌন্দর্য বৃদ্ধি পায়‌।

মোবাইলটির উচ্চতা 160 মিলিমিটার ও প্রস্থ 48 মিলিমটার তাই মোবাইল ব্যবহারে কোন অসুবিধার সম্মুখীন হতে হবে না। টর্চলাইট, ব্লাকলিস্ট ইত্যাদি সুবিধা দেয়া হয়েছে মোবাইলটিতে‌। সর্বোচ্চ ৫০০ কন্টাক্ট সেভ করতে পারবেন।

সিম ব্যবহার করতে পারবেন দুইটি। কারন মোবাইলে সিম ব্যবহার করার দুইটি স্লট ঘার্ড আছে। Mp3 ও Wav ফরমেট অডিও গান শুনতে এই মোবাইল দিয়ে। এছাড়া ভিডিও দেখতে পারবেন mp4, AVI, MOV ফরমেটের।

মোবাইলটিতে 2 জি নেটওয়ার্ক ব্যান্ড ব্যবহার করা হয়েছে। যার GSM 900MHz/1800MHz। 1.77 ইঞ্চি QVGA ডিসপ্লে দেয়া হয়েছে। 2 জিবি রেম ব্যবহার করা হয়েছে সাথে দেয়া হয়েছে 32 জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। তাছাড়া এক্সটার্নাল মাইক্রো এসডি কার্ড দিয়ে স্টোরেজ 16 জিবি পর্যন্ত বাড়াতে পারবেন।

Maximus M84 ফিচারসঃ 

  • 800 এমএইচ লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি।
  • 1.77 ইঞ্চি ডিসপ্লে
  • টর্চলাইট, ব্লাকলিস্ট ইত্যাদি সুবিধা
  • মাইক্রো USB সাপোর্টে
  • অডিও ভিডিও রেকর্ড

3.Maximus m82

Maximus M82 - ৫০০ টাকার মোবাইল

এই মোবাইলটির দাম বাংলাদেশে 720 টাকা। রেকর্ড করার সুবিধা পাবেন মোবাইলটা দিয়ে। অডিও রেকর্ড এবং ভিডিও রেকর্ড দুইটাই। করতে পারবেন। মোবাইলটিতে মাইক্রো USB সাপোর্টে করে তাই ফাইল আদান প্রদান করা যাবে সহজেই।

পিছনে একটি ডিজিটাল ক্যামেরা রয়েছে। তবে সামনে নেই কোন ক্যামরা। যদিও সামনের ক্যামেরা বাটন ফোনে অতটা জরুরি না। তারপরেও দিলে সৌন্দর্য বৃদ্ধি পায়‌।

মোবাইলটিতে দেয়া হয়েছে 1000 এমএইচ লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি। এই ব্যাটারি দ্বার 8-10 ঘন্টা ব্যাকআপ সুবিধা পাওয়া যাবে।

মোবাইলটির উচ্চতা 160 মিলিমিটার ও প্রস্থ 48 মিলিমটার তাই মোবাইল ব্যবহারে কোন অসুবিধার সম্মুখীন হতে হবে না। টর্চলাইট, ব্লাকলিস্ট ইত্যাদি সুবিধা দেয়া হয়েছে মোবাইলটিতে‌। সর্বোচ্চ ৫০০ কন্টাক্ট সেভ করতে পারবেন।

মোবাইলটিতে 2 জি নেটওয়ার্ক ব্যান্ড ব্যবহার করা হয়েছে। যার GSM 900MHz/1800MHz। 1.77 ইঞ্চি QVGA ডিসপ্লে দেয়া হয়েছে। 2 জিবি রেম ব্যবহার করা হয়েছে সাথে দেয়া হয়েছে 32 জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। তাছাড়া এক্সটার্নাল মাইক্রো এসডি কার্ড দিয়ে স্টোরেজ 16 জিবি পর্যন্ত বাড়াতে পারবেন।

সিম ব্যবহার করতে পারবেন দুইটি। কারন মোবাইলে সিম ব্যবহার করার দুইটি স্লট ঘার্ড আছে। Mp3 ও Wav ফরমেট অডিও গান শুনতে এই মোবাইল দিয়ে। এছাড়া ভিডিও দেখতে পারবেন mp4, AVI, MOV ফরমেটের।

Maximus M82 ফিচারসঃ 

  • 1000 এমএইচ লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি।
  • 1.77 ইঞ্চি ডিসপ্লে
  • টর্চলাইট, ব্লাকলিস্ট ইত্যাদি সুবিধা
  • মাইক্রো USB সাপোর্টে
  • অডিও ভিডিও রেকর্ড

শেষ কথা

আশাকরি ৫০০ টাকার মোবাইল গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। এখানে ৫০০ টাকার ম্যাক্সিমাস বাটন মোবাইল গুলো নিয়ে আলোচনা করেছি। কারন ৫০০ টাকা দামের মধ্য বাটন রিলিজ করে থাকে ম্যাক্সিমাস মোবাইল কোম্পানি।

Please Share this On:

Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url