Skip to content Skip to sidebar Skip to footer

নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশ ২০২১

বর্তমানে সবার হাতে রয়েছে একটি করে স্মার্টফোন। অনেকেই স্মার্টফোন ব্যবহারের পাশাপাশি একটি ফিচার বা বাটন ফোন ব্যবহার করে থাকে।

ফিচার বাটন ফোন গুলোর মধ্যে অন্যতম একটি সেরা কোম্পানি হচ্ছে নোকিয়া। বাংলাদেশে নোকিয়া কোম্পানির অনেকগুলো বাটন ফোন রয়েছে‌।

প্রায় অধিকাংশ মোবাইল কোম্পানিরই ফিচার বাটন ফোনে রয়েছে। তবে এই আর্টিকেলটিতে শুধু নকিয়া ফিচার বাটন মোবাইল গুলোর বিস্তারিত নিয়ে আলোচনা করা হবে।

নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশ ২০২১

নোকিয়া বাটন মোবাইল গুলোর দাম অন্যান্য মোবাইল কোম্পানিগুলোর দামের চেয়ে একটু বেশি। তবে নোকিয়া মোবাইল গুলো টেকসই হয় অনেকদিন কিন্তু অন্যান্য কোম্পানির বাটন ফোন গুলোতে এরকম হয়না।

যদি আপনি ‌‌নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশ সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন তাহলে এই আর্টি‌কেলটি আপনার অনেক উপকারে আসবে।

1.Nokia 3310 

নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশ
এই মোবাইলটির বাংলাদেশি মূল্য 4 হাজার 400 টাকা। এই নোকিয়া মোবাইলটি গ্রে(ধূসর), বুলু(নীল), রেড (লাল), ইয়েলো (হলুদ) এই চারটি কালারে পাওয়া যাবে।

এই নোকিয়া বাটন মোবাইলটিতে নেটওয়ার্কে ব্যবহৃত হয়েছে ফোরজি। এই মোবাইলটিতে দুটি সিম সাপোর্ট যোগ্য।


ডিসপ্লে হিসেবে রয়েছে 2.4 ইঞ্চি TFT টেকনোলজির QVGA 240*320 রেজুলেশনের ডিসপ্লে রয়েছে এই মোবাইলটিতে।

মোবাইলের পিছনে রয়েছে 2 মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা এবং সাথে রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাশ। কিন্তু সামনের ক্যামেরা হিসেবে কোন ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়নি। এছাড়া মোবাইলটিতে এসএমএস, এমএমএস ইত্যাদি সার্ভিস রয়েছে।

Nokia 3310 মোবাইলটিতে অডিও এবং ভিডিও সাপোর্ট করবে। অডিও ফরমেট হিসেবে সাপোর্ট করবে শুধু mp3 এবং ভিডিও ফরমেট হিসেবে সাপোর্ট করবে mp4 এবং 3gp.

রেম হিসেবে রয়েছে 16 এমবি রেম। মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে এক্সটার্নাল মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা যাবে 32 জিবি পর্যন্ত।

মোবাইলটিতে ব্যাটারি হিসেবে রয়েছে 1200 এমএইচ লিথিয়াম ব্যাটারি। যার মাধ্যমে একাধারে কলিং সুবিধা দেওয়ার ক্ষেত্রে 22 ঘন্টা পর্যন্ত ব্যাকাপ দিতে পারবে।

এছাড়া ফোনবুক, ফ্লাসলাইট, কল রেকর্ডার, ইন্টারনেট এবং গেম ইত্যাদি ফিচারস রয়েছে এই বাটন মোবাইল দিতে। তবে মোবাইলটিতে জাভা সাপোর্ট যোগ্য নয়।

Nokia 3310 features:

  • 2.4 ইঞ্চি 240*320 রেজুলেশনের ডিসপ্লে।
  • 1200 এমএএইচ ব্যাটারি।
  • 4G নেটওয়ার্ক।
  • ফোনবুক, ফ্লাসলাইট, কল রেকর্ডার, ইন্টারনেট এবং গেম ইত্যাদি ফিচারস।
  • পিছনে 2 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।
  • 16 এমবি রেম। জাবা সাপোর্ট যোগ্য নয়। 

2.Nokia 5310

Nokia 5310

এই মোবাইলটির মূল্য 4099 টাকা। এই নোকিয়া বাটন মোবাইলটিতে নেটওয়ার্ক হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে 2 জি নেটওয়ার্ক। এই মোবাইলটিতে দুটি সিম সাপোর্ট যোগ্য।

ডিসপ্লে হিসেবে রয়েছে 2.4 ইঞ্চি TFT টেকনোলজির QVGA 240*320 রেজুলেশনের ডিসপ্লে রয়েছে এই মোবাইলটিতে।

মোবাইলের পিছনে রয়েছে 0.3 মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা এবং সাথে রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাশ। কিন্তু সামনের ক্যামেরা হিসেবে কোন ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়নি। এছাড়া মোবাইলটিতে এসএমএস, এমএমএস ইত্যাদি সার্ভিস রয়েছে।

Nokia 5310 মোবাইলটিতে অডিও। অডিও ফরমেট হিসেবে সাপোর্ট করবে শুধু mp3.

রেম হিসেবে রয়েছে 8 এমবি রেম এবং 16 এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে এক্সটার্নাল মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা যাবে 32 জিবি পর্যন্ত।


মোবাইলটিতে ব্যাটারি হিসেবে রয়েছে 1200 এমএইচ লিথিয়াম ব্যাটারি। যার মাধ্যমে একাধারে কলিং সুবিধা দেওয়ার ক্ষেত্রে 22 ঘন্টা পর্যন্ত ব্যাকাপ দিতে পারবে।

এছাড়া ফোনবুক, ফ্লাসলাইট, কল রেকর্ডার, ইন্টারনেট এবং গেম ইত্যাদি ফিচারস রয়েছে এই বাটন মোবাইল দিতে। তবে মোবাইলটিতে জাভা সাপোর্ট যোগ্য নয়।

এই মোবাইলটি পাওয়া যাবে দুটি কালার একটি সাদা এবং অন্যটি কালো।

Nokia 5310 features:

  • 2.4 ইঞ্চি 240*320 রেজুলেশনের ডিসপ্লে।
  • 1200 এমএএইচ ব্যাটারি।
  • 2G নেটওয়ার্ক।
  • ফোনবুক, ফ্লাসলাইট, কল রেকর্ডার, ইন্টারনেট এবং গেম ইত্যাদি ফিচারস।
  • পিছনে 0.3 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।
  • 08 এমবি রেম।
  • জাবা সাপোর্ট যোগ্য নয়।

3.Nokia 105

নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশ
এই মোবাইলটির বাংলাদেশি মূল্য 1 হাজার 499 টাকা। এই নোকিয়া বাটন মোবাইলটিতে নেটওয়ার্কে ব্যবহৃত হয়েছে 2 জি নেটওয়ার্ক। এই মোবাইলটিতে দুটি সিম সাপোর্ট যোগ্য।

ডিসপ্লে হিসেবে রয়েছে 1.7 ইঞ্চি TFT টেকনোলজির QVGA 120*160 রেজুলেশনের ডিসপ্লে রয়েছে এই মোবাইলটিতে।

মোবাইলের পিছনে ও সামনে ছবি তোলার জন্য কোন ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়নি। এছাড়া মোবাইলটিতে এসএমএস, এমএমএস ইত্যাদি সার্ভিস রয়েছে।

Nokia 105 মোবাইলটিতে অডিও এবং ভিডিও সাপোর্ট যোগ্য নয়। এই মোবাইলটির ওজন মাত্র 73 গ্রাম।


রেম হিসেবে রয়েছে 4 এমবি রেম এবং 4 এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে এক্সটার্নাল মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা যাবে নাহ।

মোবাইলটিতে ব্যাটারি হিসেবে রয়েছে 800 এমএইচ লিথিয়াম ব্যাটারি। যার মাধ্যমে একাধারে কলিং সুবিধা দেওয়ার ক্ষেত্রে 14 ঘন্টা 22 মিনিট পর্যন্ত ব্যাকাপ দিতে পারবে।

এছাড়া ফোনবুক, ফ্লাসলাইট, কল রেকর্ডার, ইন্টারনেট এবং গেম ইত্যাদি ফিচারস রয়েছে এই বাটন মোবাইল দিতে। তবে মোবাইলটিতে জাভা সাপোর্ট যোগ্য নয়।

এই মোবাইলটি কালো, নীল, গোলাপী এই তিনটি কালারে পাওয়া যাবে।

Nokia 105 features:

  • 1.7 ইঞ্চি 120*160 রেজুলেশনের ডিসপ্লে।
  • 800 এমএএইচ ব্যাটারি।
  • 2G নেটওয়ার্ক।
  • ফোনবুক, ফ্লাসলাইট, কল রেকর্ডার, ইন্টারনেট এবং গেম ইত্যাদি ফিচারস।
  • 4 এমবি রেম ও 4 এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ।
  • জাবা সাপোর্ট যোগ্য নয়। 

4.Nokia 110

এই মোবাইলটির বাংলাদেশি মূল্য 2 হাজার 149 টাকা। এই নোকিয়া বাটন মোবাইলটিতে নেটওয়ার্কে ব্যবহৃত হয়েছে 2 জি নেটওয়ার্ক। এই মোবাইলটিতে দুটি সিম সাপোর্ট যোগ্য।

ডিসপ্লে হিসেবে রয়েছে 1.7 ইঞ্চি TFT টেকনোলজির QVGA 120*160 রেজুলেশনের ডিসপ্লে রয়েছে এই মোবাইলটিতে।

মোবাইলের পিছনে ও সামনে ছবি তোলার জন্য কোন ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়নি। এছাড়া মোবাইলটিতে এসএমএস, এমএমএস ইত্যাদি সার্ভিস রয়েছে।

Nokia 110 মোবাইলটিতে অডিও। অডিও ফরমেট হিসেবে সাপোর্ট করবে শুধু mp3.

রেম হিসেবে রয়েছে 4 এমবি রেম এবং 4 এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে এক্সটার্নাল মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা যাবে 32 জিবি পর্যন্ত।

মোবাইলটিতে ব্যাটারি হিসেবে রয়েছে 800 এমএইচ লিথিয়াম ব্যাটারি। যার মাধ্যমে একাধারে কলিং সুবিধা দেওয়ার ক্ষেত্রে 14 ঘন্টা 22 মিনিট পর্যন্ত ব্যাকাপ দিতে পারবে।

এছাড়া ফোনবুক, ফ্লাসলাইট, কল রেকর্ডার, ইন্টারনেট এবং গেম ইত্যাদি ফিচারস রয়েছে এই বাটন মোবাইল দিতে। তবে মোবাইলটিতে জাভা সাপোর্ট যোগ্য নয়।

‌এই মোবাইলটি কালো, নীল, গোলাপী এই তিনটি কালারে পাওয়া যাবে।

Nokia 110 features:

  • 1.7 ইঞ্চি 120*160 রেজুলেশনের ডিসপ্লে।
  • 800 এমএএইচ ব্যাটারি।
  • 2G নেটওয়ার্ক।
  • ফোনবুক, ফ্লাসলাইট, কল রেকর্ডার, ইন্টারনেট এবং গেম ইত্যাদি ফিচারস।
  • 4 এমবি রেম ও 4 এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ।
  • জাবা সাপোর্ট যোগ্য নয়।

5.Nokia 220

এই মোবাইলটি পাওয়া যাবে দুটি কালার একটি কালো এবং অন্যটি নীল। এই মোবাইলটির বাংলাদেশি মূল্য 3 হাজার 999 টাকা। 

এই নোকিয়া বাটন মোবাইলটিতে নেটওয়ার্কে ব্যবহৃত হয়েছে ফোরজি। এই মোবাইলটিতে দুটি সিম সাপোর্ট যোগ্য।

ডিসপ্লে হিসেবে রয়েছে 2.4 ইঞ্চি TFT টেকনোলজির QVGA 240*320 রেজুলেশনের ডিসপ্লে রয়েছে এই মোবাইলটিতে।

মোবাইলের পিছনে রয়েছে 0.3 মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা এবং সাথে রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাশ। কিন্তু সামনের ক্যামেরা হিসেবে কোন ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়নি। 

এছাড়াও এই মোবাইলটি দিয়ে 320 পিক্সেল ভিডিও রেকর্ডিং করা যাবে। মোবাইলটিতে এসএমএস, এমএমএস ইত্যাদি সার্ভিস রয়েছে।

Nokia 220 মোবাইলটিতে অডিও এবং ভিডিও সাপোর্ট করবে। অডিও ফরমেট হিসেবে সাপোর্ট করবে mp3 এবং wav ভিডিও ফরমেট হিসেবে সাপোর্ট করবে mp4 এবং 3gp.

রেম হিসেবে রয়েছে 16 এমবি রেম এবং 24 এমবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ। মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে এক্সটার্নাল মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা যাবে 32 জিবি পর্যন্ত।

মোবাইলটিতে ব্যাটারি হিসেবে রয়েছে 1200 এমএইচ লিথিয়াম ব্যাটারি। যার মাধ্যমে একাধারে কলিং সুবিধা দেওয়ার ক্ষেত্রে 22 ঘন্টা পর্যন্ত ব্যাকাপ দিতে পারবে।

এছাড়া ফোনবুক, ফ্লাসলাইট, কল রেকর্ডার, ইন্টারনেট এবং গেম ইত্যাদি ফিচারস রয়েছে এই বাটন মোবাইল দিতে। তবে মোবাইলটিতে জাভা সাপোর্ট যোগ্য নয়।

Nokia 220 features:

  • 2.4 ইঞ্চি 240*320 রেজুলেশনের ডিসপ্লে।
  • 1200 এমএএইচ ব্যাটারি।
  • 4G নেটওয়ার্ক।
  • ফোনবুক, ফ্লাসলাইট, কল রেকর্ডার, ইন্টারনেট এবং গেম ইত্যাদি ফিচারস।
  • পিছনে 0.3 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।
  • 16 এমবি রেম ও 24 এমবি ইন্টারনেট স্টোরেজ।
  • জাবা সাপোর্ট যোগ্য নয়।  

আমাদের শেষ কথা

আশা করি আজকের নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশ আর্টিকেলটি আপনাদের কাছে ভাল লেগেছে।

যদি আপনি একটি বাটন ফোন বা ফিচার ফোন কিনতে চান তাহলে আজকের এই আর্টিকেলটির মাধ্যমে আপনারা বাটন মোবাইল সম্পর্কে সম্পূর্ণ ধারণা পেয়েছেন আশা করি। 

এ আর্টিকেলটিতে ব্যবহৃত মোবাইলের দাম গুলো যেকোনো সময় কোম্পানি বা অন্য কোন ভাবে পরিবর্তিত হতে পারে।
Sharif ahmed
Sharif ahmed ব্লগিং করা আমার স্বপ্ন। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে বাংলায় টেকনোলজি নিয়ে ব্লগিং শুরু করেছি।

Post a Comment for "নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশ ২০২১"