Skip to content Skip to sidebar Skip to footer

আইটেল মোবাইল কম দামে | আইটেল মোবাইল দাম বাংলাদেশ ২০২২

স্মার্টফোন আমাদের নিত্যদিনের অতি প্রয়োজনীয় একটি বস্তু। আমাদের সকলের আকাঙ্ক্ষা নিজের একটি স্মার্টফোন থাকুক।

এই আর্টিকেলে আইটেল মোবাইল কম দামে নিয়ে আলোচনা করা হবে‌ যদি আপনি আইটেল মোবাইল দাম বাংলাদেশ ২০২২ সম্পর্কে জেনে নিতে চান তাহলে এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনার উপকার হবে।

আইটেল মোবাইল কম দামে | আইটেল মোবাইল দাম বাংলাদেশ

আইটেল মোবাইল কম দামে

অনেক সময় আমাদের সামর্থ্য না থাকার কারণে নতুন স্মার্টফোন কিনার শখ পূরণ করতে পারি না। তখন সেকেন্ড হ্যান্ড স্মার্টফোন খুজে থাকি। নতুন মোবাইল কিনার শখ পূরণ করার জন্য আইটেল সবসময় নিয়ে আসে কম দামের স্মার্টফোন। যাদের বাজেট কম কিন্তু স্মার্টফোনের শখ তাদের জন্য আইটেল অন্যতম একটি উপায়।

বাংলাদেশে কম বাজেটের ফোন রিলিজ করা কোম্পানি গুলোর মধ্যে আইটেল মোবাইল কোম্পানি অন্যতম। বলতে গেলে বাংলাদেশের নিম্নমধ্যবিত্ত বা মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষের স্মার্টফোন ব্যবহার করার শখ পুরন হয়েছে আইটেল স্মাটফোন দিয়েই।


আইটেল মোবাইল গুলোতে উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন প্রসেসর ব্যবহার করা হয়না। তাই আইটেল মোবাইল দিয়ে স্মুথ গেমিং করা যায় না। তবে কিছু আইটেলের স্মার্টফোন রয়েছে যেগুলো গেমিং করা যায় তবে অনেক প্রেসার দেয়া যায় না। 

তাছাড়া বেশিরভাগ আইটেল ফোনেই দুই জিবি রেম প্রসেসর ব্যবহার করা হয়। যার ফলে আইটেল মোবাইল দিয়ে অতিরিক্ত গেমিং করার ইচ্ছা পোষন করাটা ভুল। তবে কম বাজাটের মোবাইল কিনার ক্ষেত্রে এসব বিষয় ছাড় দিতে হয়।

itel মোবাইলের দাম ও ছবি | itel কম দামে ভালো মোবাইল

অনেকেই আইটেল মোবাইলের দাম ও ছবি সম্পর্কে জানতে চান‌। তারা এই আর্টিকেলের মাধ্যমে  itel কম দামে ভালো মোবাইল গুলোর ছবি ও স্পেসিফিকেশন নিয়ে বিস্তারিত জানতে পারবেন। 

নিচে পাঁচটি আইটেল কম দামের মোবাইল নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। এগুলো পড়ার মাধ্যমে আইটেল মোবাইলের দাম ও এদের স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে জানতে পারবেন।

আইটেল মোবাইল দাম বাংলাদেশ ২০২২

1.Itel A26

আইটেল মোবাইল দাম
Itel A26 মোবাইলটির মুল্য 6 হাজার 990। রেম ব্যবহার করা হয়েছে 2 জিবি এবং ইন্টার্নাল ষ্টোরেজ অর্থাৎ রম হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে 32 জিবি।

এ মোবাইলটিতে আইপিএস এলসিডি টাচস্ক্রিন প্রযুক্তির 5.7 ইঞ্চি এইচডি প্লাস 720 x 1520 রেজুলেশন ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। তাছাড়া ডিসপ্লেতে 269 পিক্সেল ডেনসিটি ব্যবহার করা হয়েছে।  ডিসপ্লে নিরাপত্তার জন্য কিছু ব্যবহার হয়নি।

পিছনের ক্যামেরা দিয়ে ছবি তোলার জন্য রয়েছে দুইটি ক্যামেরা। 5 মেগাপিক্সেলে ও Al মেগাপিক্সেল দুইটি ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে পিছনে। পিছনের ক্যামেরা দিয়ে সর্বোচ্চ 1080 পিক্সেল রেজুলেশনে ভিডিও করা যাবে।

Back camera features: 
  • অটোফোকাস, এলইডি ফ্ল্যাশ, প্যানোরামা, এইচডিআর, ডেপথ সেন্সর।
সামনের ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও করার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে 2 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।

লিথিয়াম-পলিমার 3000 এমএইচ ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। স্বাভাবিক ব্যবহারে 7-10 ঘন্টা ব্যাকআপ পাওয়া যাবে। চার্জ দেয়ার জন্য কোন ফাষ্ট চার্জিং সুবিধা দেয়া হয়নি।

অ্যান্ড্রয়েড 10 অপারেটিং সিস্টেমের সাথে রয়েছে UniSoC SC9832E (28 nm) চিপসেট। এছাড়া রয়েছে 1.4 গিগাহার্জ অক্টাকোর প্রসেসর। জিপিইউ হিসেবে ব্যবহার করা হয়ছে PowerVR।

সিকিউরিটি সুবিধা দেয়ার জন্য মোবাইলটির পিছনে ব্যবহার করা হয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও আরোও রয়েছে ফেসলক আনলক সুবিধা।

Itel A26 features:

  • 2 জিবি রেম ও 32 জিবি ইন্টারনাল ষ্টোরেজ
  • 3000 এমএইচ ব্যাটারি
  • পিছনে 5+Al মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ও সামনে 2 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।
  • 5.57 ইঞ্চি এইচডি প্লাস 720 x 1520 রেজুলেশন ডিসপ্লে
  • অ্যান্ড্রয়েড 10 অপারেটিং সিস্টেম।

2. Itel A36

itel কম দামে ভালো মোবাইল
Itel A36 মোবাইলটির মুল্য 6 হাজার 990। রেম ব্যবহার করা হয়েছে 1 জিবি এবং ইন্টার্নাল ষ্টোরেজ অর্থাৎ রম হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে 16 জিবি।

এ মোবাইলটিতে আইপিএস এলসিডি টাচস্ক্রিন প্রযুক্তির 5.5 ইঞ্চি এইচডি প্লাস 720 x 1520 রেজুলেশন ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। তাছাড়া ডিসপ্লেতে 282 পিক্সেল ডেনসিটি ব্যবহার করা হয়েছে।  ডিসপ্লে নিরাপত্তার জন্য কিছু ব্যবহার হয়নি।


পিছনের ক্যামেরা দিয়ে ছবি তোলার জন্য রয়েছে একটি ক্যামেরা। 5 মেগাপিক্সেলে একটি ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে পিছনে। 

Back camera features: 
  •  এলইডি ফ্ল্যাশ, এইচডিআর
সামনের ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও করার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে 5 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।

লিথিয়াম-আয়ন 3020 এমএইচ ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। স্বাভাবিক ব্যবহারে 7-10 ঘন্টা ব্যাকআপ পাওয়া যাবে। চার্জ দেয়ার জন্য কোন ফাষ্ট চার্জিং সুবিধা দেয়া হয়নি।

অ্যান্ড্রয়েড পাই অপারেটিং সিস্টেমের সাথে রয়েছে UniSoC SC7731E (28 nm) চিপসেট। এছাড়া রয়েছে 1.3 গিগাহার্জ অক্টাকোর প্রসেসর। জিপিইউ হিসেবে ব্যবহার করা হয়ছে PowerVR।

সিকিউরিটি সুবিধা দেয়ার জন্য মোবাইলটির পিছনে ব্যবহার করা হয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও আরোও রয়েছে ফেসলক আনলক সুবিধা।

Itel A36 features:

  • 1 জিবি রেম ও 16 জিবি ইন্টারনাল ষ্টোরেজ
  • 3020 এমএইচ ব্যাটারি
  • পিছনে 5 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ও সামনে 5 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।
  • 5.5 ইঞ্চি এইচডি প্লাস 720 x 1520 রেজুলেশন ডিসপ্লে
  • অ্যান্ড্রয়েড 9 অপারেটিং সিস্টেম।

3.Itel vision 2s

itel মোবাইলের দাম ও ছবি
Itel vision 2s মোবাইলটির মুল্য 8 হাজার 690। রেম ব্যবহার করা হয়েছে 2 জিবি এবং ইন্টার্নাল ষ্টোরেজ অর্থাৎ রম হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে 32 জিবি।

এ মোবাইলটিতে আইপিএস এলসিডি টাচস্ক্রিন প্রযুক্তির 6.52 ইঞ্চি এইচডি প্লাস 720 x 1600 রেজুলেশন ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। তাছাড়া ডিসপ্লেতে 269 পিক্সেল ডেনসিটি ব্যবহার করা হয়েছে।  ডিসপ্লে নিরাপত্তার জন্য কিছু ব্যবহার হয়নি।

পিছনের ক্যামেরা দিয়ে ছবি তোলার জন্য রয়েছে দুইটি ক্যামেরা। 8 মেগাপিক্সেলে ও 0.3 মেগাপিক্সেল দুইটি ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে পিছনে। পিছনের ক্যামেরা দিয়ে সর্বোচ্চ 1080 পিক্সেল রেজুলেশনে ভিডিও করা যাবে।

Back camera features: 
  • অটোফোকাস, এলইডি ফ্ল্যাশ, প্যানোরামা, এইচডিআর, ডেপথ সেন্সর।
সামনের ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও করার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে 5 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। যার মাধ্যমে ভিডিও করা যাবে সর্বোচ্চ 720 পিক্সেল রেজুলেশনে।

লিথিয়াম-পলিমার 5000 এমএইচ ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। স্বাভাবিক ব্যবহারে 1-2 দিন ব্যাকআপ পাওয়া যাবে। চার্জ দেয়ার জন্য কোন ফাষ্ট চার্জিং সুবিধা দেয়া হয়নি। 


অ্যান্ড্রয়েড 11 অপারেটিং সিস্টেমের সাথে রয়েছে UNiSOC SC9863A (28 nm) চিপসেট। এছাড়া রয়েছে 1.6 গিগাহার্জ অক্টাকোর প্রসেসর। জিপিইউ হিসেবে ব্যবহার করা হয়ছে PowerVR GE8322।

সিকিউরিটি সুবিধা দেয়ার জন্য মোবাইলটির পিছনে ব্যবহার করা হয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও আরোও রয়েছে ফেসলক আনলক সুবিধা।

Itel vision 2s features:

  • 2 জিবি রেম ও 32 জিবি ইন্টারনাল ষ্টোরেজ
  • 5000 এমএইচ ব্যাটারি
  • পিছনে 8+0.3 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ও সামনে 5 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।
  • 6.52 ইঞ্চি এইচডি প্লাস 720 x 1600 রেজুলেশন ডিসপ্লে
  • অ্যান্ড্রয়েড 11 অপারেটিং সিস্টেম।

4. Itel vision 2 Plus

আইটেল মোবাইল দাম বাংলাদেশ ২০২২

Itel vision 2 Plus মোবাইলটির 2/32 ভার্সনের মুল্য 8 হাজার 990 টাকা ও 3/64 ভার্সনের মুল্য 9 হাজার 990 টাকা। এ মোবাইলটির দুইটি ভার্সন রয়েছে এক ভার্সনে ব্যবহার করা হয়েছে 2 জিবি রেম ও 32 জিবি ইন্টারনাল ষ্টোরেজ। এবং অন্য ভার্সনে ব্যবহার করা হয়ছে 3 জিবি রেম ও 64 জিবি ইন্টার্নাল ষ্টোরেজ।

এ মোবাইলটিতে আইপিএস এলসিডি টাচস্ক্রিন প্রযুক্তির 6.8 ইঞ্চি এইচডি প্লাস 720 x 1600 রেজুলেশন ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। তাছাড়া ডিসপ্লেতে 269 পিক্সেল ডেনসিটি ব্যবহার করা হয়েছে। ডিসপ্লে নিরাপত্তার জন্য কিছু ব্যবহার হয়নি।

পিছনের ক্যামেরা দিয়ে ছবি তোলার জন্য রয়েছে দুইটি ক্যামেরা। 13 মেগাপিক্সেলে ও 0.3 মেগাপিক্সেল দুইটি ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে পিছনে। পিছনের ক্যামেরা দিয়ে সর্বোচ্চ 1080 পিক্সেল রেজুলেশনে ভিডিও করা যাবে।

Back camera feature:
  •  অটোফোকাস, LED ফ্ল্যাশ, 4x জুম, ডেপথ
সামনের ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও করার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে 5 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। যার মাধ্যমে ভিডিও করা যাবে সর্বোচ্চ 1080 পিক্সেল রেজুলেশনে।

লিথিয়াম-পলিমার 5000 এমএইচ ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। স্বাভাবিক ব্যবহারে 15-20 ঘন্টা ব্যাকআপ পাওয়া যাবে। চার্জ দেয়ার জন্য কোন ফাষ্ট চার্জিং সুবিধা দেয়া হয়নি। 
    
অ্যান্ড্রয়েড 10 অপারেটিং সিস্টেমের সাথে রয়েছে Unisoc SC9863A (28 nm) চিপসেট। এছাড়া রয়েছে 1.6 গিগাহার্জ অক্টাকোর প্রসেসর। জিপিইউ হিসেবে ব্যবহার করা হয়ছে PowerVR IMG8322.

সিকিউরিটি সুবিধা দেয়ার জন্য মোবাইলটির পিছনে ব্যবহার করা হয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও আরোও রয়েছে ফেসলক আনলক সুবিধা।

Itel vision 2 Plus features:

  • 2 জিবি রেম ও 32 জিবি ইন্টারনাল ষ্টোরেজ এবং 3 জিবি রেম ও 64 ইন্টার্নাল ষ্টোরেজ।
  • 5000 এমএইচ ব্যাটারি।
  • পিছনে 13+0.3 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ও সামনে 5 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।
  • 6.8 ইঞ্চি এইচডি প্লাস 720 x 1600 রেজুলেশন ডিসপ্লে।
  • অ্যান্ড্রয়েড 11 অপারেটিং সিস্টেম।

5.itel vision 2

আইটেল মোবাইল কম দামে

Itel vision 2  মোবাইলটির 2/32 ভার্সনের মুল্য 8 হাজার 490 টাকা ও 3/64 ভার্সনের মুল্য 9 হাজার 490 টাকা। এ মোবাইলটির দুইটি ভার্সন রয়েছে এক ভার্সনে ব্যবহার করা হয়েছে 2 জিবি রেম ও 32 জিবি ইন্টারনাল ষ্টোরেজ। এবং অন্য ভার্সনে ব্যবহার করা হয়ছে 3 জিবি রেম ও 64 জিবি ইন্টার্নাল ষ্টোরেজ।

এ মোবাইলটিতে আইপিএস এলসিডি টাচস্ক্রিন প্রযুক্তির 6.6 ইঞ্চি এইচডি প্লাস 720 x 1600 রেজুলেশন ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। তাছাড়া ডিসপ্লেতে 282 পিক্সেল ডেনসিটি ব্যবহার করা হয়েছে। ডিসপ্লে নিরাপত্তার জন্য কিছু ব্যবহার হয়নি।

পিছনের ক্যামেরা দিয়ে ছবি তোলার জন্য রয়েছে তিনটি ক্যামেরা। 13 মেগাপিক্সেলে , 2 মেগাপিক্সেল ও 0.3 মেগাপিক্সেল দুইটি ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে পিছনে। পিছনের ক্যামেরা দিয়ে সর্বোচ্চ 1080 পিক্সেল রেজুলেশনে ভিডিও করা যাবে।

Back camera feature:
  •  অটোফোকাস, LED ফ্ল্যাশ, 4x জুম, ডেপথ
সামনের ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও করার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে 8 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। যার মাধ্যমে ভিডিও করা যাবে সর্বোচ্চ 1080 পিক্সেল রেজুলেশনে।


লিথিয়াম-পলিমার 4000 এমএইচ ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। স্বাভাবিক ব্যবহারে 10-15 ঘন্টা ব্যাকআপ পাওয়া যাবে। চার্জ দেয়ার জন্য কোন ফাষ্ট চার্জিং সুবিধা দেয়া হয়নি। 
    
অ্যান্ড্রয়েড 10 অপারেটিং সিস্টেমের সাথে রয়েছে Unisoc চিপসেট। এছাড়া রয়েছে 1.6 গিগাহার্জ অক্টাকোর প্রসেসর। জিপিইউ হিসেবে ব্যবহার করা হয়ছে PowerVR IMG8322.

সিকিউরিটি সুবিধা দেয়ার জন্য মোবাইলটির পিছনে ব্যবহার করা হয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও আরোও রয়েছে ফেসলক আনলক সুবিধা।

Itel vision 2 features:

  • 2 জিবি রেম ও 32 জিবি ইন্টারনাল ষ্টোরেজ এবং 3 জিবি রেম ও 64 ইন্টার্নাল ষ্টোরেজ।
  • 4000 এমএইচ ব্যাটারি।
  • পিছনে 13+2+0.3 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ও সামনে 5 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।
  • 6.6 ইঞ্চি এইচডি প্লাস 720 x 1600 রেজুলেশন ডিসপ্লে।
  • অ্যান্ড্রয়েড 10 অপারেটিং সিস্টেম।

শেষ কথা

যারা অল্প বাজেটে স্মার্টফোন কিনত তাদের জন্য আইটেল অন্যতম একটি অপশন।

এই আর্টিকেলে আইটেল মোবাইল কম দামে নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। এ আর্টিকেলে itel মোবাইলের দাম ও ছবি যুক্ত করা হয়েছে তাই আশাকরি কম দামের আইটেল মোবাইল গুলোর ছবি ও দাম সম্পর্কে অভিহিত হয়েছেন।

কোনরুপ মন্তব্য থাকলে কমেন্ট বক্সে জানিয়ে দিন। আর্টিকেলটি ভালো লাগলে বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে দিন। আল্লাহ হাফেজ 
Sharif ahmed
Sharif ahmed ব্লগিং করা আমার স্বপ্ন। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে বাংলায় টেকনোলজি নিয়ে ব্লগিং শুরু করেছি।

1 comment for "আইটেল মোবাইল কম দামে | আইটেল মোবাইল দাম বাংলাদেশ ২০২২"

  1. অনেক সুন্দর লিখছেন ❤️

    ReplyDelete

দয়াকরে কমেন্ট স্প্যামিং থেকে বিরত থাকুন !