Skip to content Skip to sidebar Skip to footer

অপ্পো মোবাইল দাম বাংলাদেশ ২০২১

বাংলাদেশের মোবাইল কোম্পানিগুলোর মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় একটি কোম্পানি হচ্ছে অপ্পো। এই আর্টিকেলটিতে ‌অপ্পো মোবাইল দাম বাংলাদেশ ২০২১ সম্পর্কে সম্পূর্ণরূপে আপনাদের সাথে আলোচনা করব।

বাংলাদেশে অপ্পোর নিজস্ব ফ্যাক্টরি থাকায় এবং বাংলাদেশের সর্বত্র অপ্পো মোবাইল কোম্পানির সার্ভিস থাকায় খুব সহজেই এই কোম্পানিটি বাংলাদেশের জনপ্রিয় একটি মোবাইল  কোম্পানি হিসেবে বিবেচিত হয়।


এই কোম্পানিটির আরো একটি জনপ্রিয় মোবাইল সাব-ব্রান্ড কোম্পানি রয়েছে। সেই সাব-ব্রান্ড কোম্পানিটি হচ্ছে রিয়েলমি। আপনি যদি অপ্পো মোবাইল প্রাইস ইন বাংলাদেশ ৫০০০ তো ১০০০০ সম্পর্কে জেনে নিতে চাচ্ছেন তাহলে এই আর্টিকেলটির মাধ্যমে খুব সহজেই জানতে পারবেন।

অপ্পো জনপ্রিয় একটি মোবাইল কোম্পানি হলেও প্রসেসরের দিক দিয়ে অন্যান্য কোম্পানি গুলো থেকে একটু পিছিয়ে রয়েছে। এই কোম্পানিটি প্রসেসরের দিকে একটু খেয়াল রেখে কম দামে ভালো মোবাইল রিলিজ করলে আরো জনপ্রিয় হয়ে উঠবে।

তাছাড়া ক্যামেরা, ব্যাটারি, ফাস্ট চার্জিং ও গেমিং পারফরমেন্সের দিক দিয়ে খেয়াল রেখে অন্যান্য কোম্পানি গুলোর মতই এই মোবাইল কোম্পানিটি এগিয়ে যাচ্ছে।

অপ্পো মোবাইল দাম বাংলাদেশ ২০২১

অপ্পো মোবাইল ফোন কোম্পানি বাংলাদেশে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন মোবাইল রিলিজ করে থাকে। ডিজাইনের দিক থেকে‌‌ ‌অপ্পো মোবাইল ফোন কোম্পানি অন্যান্য মোবাইল কোম্পানিগুলো থেকে ভালো করে থাকে।

সেক্ষেত্রে আপনি যদি ‌‌অপ্পো মোবাইলের ডিজাইন পছন্দ করে oppo মোবাইলের দাম ও ছবি 2021 সম্পর্কে জেনে নিতে চাচ্ছেন তাহলে আর্টিকেলটি আপনার উপকারে আসবে।

কারণ আজকের এই আর্টিকেলটিতে ‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌অপ্পো মোবাইলের ছবি ও তাদের স্পেসিফিকেশন গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। এছাড়াও বাংলাদেশ বাজারের ‌কম দামের অপ্পো মোবাইল গুলো নিয়ে আর্টিকেলটিতে আলোচনা করা হবে।

oppo মোবাইলের দাম ও ছবি 2021

এই আর্টিকেলটির মাধ্যমে আপনি ‌‌oppo মোবাইল এর দাম ও ছবি এবং সেইসাথে মোবাইলগুলো গুরুত্বপূর্ণ সকল ধরনের স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

বর্তমানে বাংলাদেশে পাওয়া যাবে এমন আটটি অপ্পো মোবাইল ফোন নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব।

1.Oppo A1K

অপ্পো এই মোবাইলটির বডি তৈরি হয়েছে প্লাস্টিক দিয়ে। প্লাস্টিক বডি হওয়ায় মোবাইলটির ওজন মাত্র 170 গ্রাম। বাংলাদেশ বাজারে এই মোবাইলের মূল্য 9 হাজার 990 টাকা।

মোবাইলটিতে সিকিউরিটি সুবিধা দেওয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়েছে ফেসলক সুবিধা।

6.1 ইঞ্চি এইচডি প্লাস রেজুলেশনের 720*1560 পিক্সেল আইপিএস টেকনোলজির ডিসপ্লে ব্যবহৃত হয়েছে মোবাইলটিতে। এছাড়া ডিসপ্লে সুরক্ষা দেয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়েছে কর্নিং গরিল্লা গ্লাস 3। ডিসপ্লে ফিচারস হিসেবে রয়েছে মাল্টিটাচ সুবিধা।

রেম হিসেবে মোবাইলটিতে ব্যবহৃত হয়েছে 2 জিবি রেম এবং সাথে রয়েছে 32 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ। রেম কম হওয়ায় মোবাইলটি ব্যবহারে একটু অসুবিধা হতে পারে।

পিছনের ক্যামেরা হিসেবে রয়েছে একটি মাত্র 8 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এলইডি ফ্ল্যাশ, এইচডিআর, প্রোট্রাইট ইত্যাদি ফিচারস রয়েছে পিছনের ক্যামেরা হিসেবে। পিছনের ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও রেকর্ডিং করা যাবে 1080 পিক্সেলে।

মোবাইলটির সামনে ক্যামেরা হিসেবে রয়েছে মাত্র 5 মেগাপিক্সেল এর একটি ক্যামেরা। ভিডিও রেকর্ডিং করার ক্ষেত্রে সামনের ক্যামেরা দিয়ে 720 পিক্সেল পর্যন্ত করা যাবে।

ব্যাটারি হিসেবে মোবাইলটিতে ব্যবহৃত হয়েছে নন রিমুভাল 4000 এমএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। ফাস্ট চার্জিং সুবিধা দেওয়ার জন্য মোবাইলটিতে ব্যবহৃত হয়েছে 10 ওয়াট ফাস্ট চার্জার।

অ্যান্ড্রয়েড নয়(9) অপারেটিং(কালার ওএস 6) সিস্টেম  ব্যবহৃত হয়েছে। এবং সাথে ব্যবহৃত হয়েছে মিডিয়াটেক হেলিও P22 চিপসেট। আরো রয়েছে 2.0 গিগাহার্জ অক্টাকোর প্রসেসর।

Oppo A1K ফিচারসঃ

  • 2 জিবি রেম ও 32 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ।
  • 4000 এমএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি।
  • মিডিয়াটেক হেলিও p22 চিপসেট।
  • 6.1  ইঞ্চি এইচডি প্লাস ডিসপ্লে।
  • ওজন 170 গ্রাম।
  • অ্যান্ড্রয়েড 9 অপারেটিং সিস্টেম।
  • 10 ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

2.Oppo A12

প্লাস্টিক বডি দিয়ে তৈরি হওয়ায় এই মোবাইলটির ওজন 165 গ্রাম। 3/32 জিবি ভেরিয়েন্ট মূল্য 9 হাজার 990  টাকা 4/64 জিবি ভেরিয়েন্ট মূল্য 13 হাজার 990 টাকা।
 
মোবাইলটিতে সিকিউরিটি সুবিধা দেওয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট এবং ফেসলক।

এই মোবাইলটি পাওয়া যাবে দুইটি ভেরিয়েন্ট একটি হচ্ছে 3 জিবি রেম 32 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ এবং অন্যটি হচ্ছে 4 জিবি রেম 64 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ। এক্সটার্নাল এসডি কার্ডের মাধ্যমে সর্বোচ্চ 256 জিবি পর্যন্ত সাপোর্ট যোগ্য।

অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড 9(কালার ওএস 6.1.2). চিপসেট হিসেবে রয়েছে মিডিয়াটেক হেলিও P35 12nm চিপসেট। 2.35 গিগাহার্জ অক্টাকোর প্রসেসর রয়েছে এই মোবাইলটির প্রসেসর হিসেবে।

13 ও 2 মেগাপিক্সেলের দুইটি ক্যামেরা ব্যবহৃত হয়েছে পিছনে ক্যামেরা হিসেবে। পিডিএফ, এলইডি ফ্ল্যাশ, ড্রিফ্থ সেন্সর ও এইচডিআর ইত্যাদি ফিচারস রয়েছে পিছনের ক্যামেরা হিসেবে। 1080 পিক্সেলে ভিডিও করা যাবে পিছনের ক্যামেরা দিয়ে।

একটিমাত্র ক্যামেরা হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে সামনের ক্যামেরা হিসেবে। সামনের ক্যামেরা হিসেবে রয়েছে 5 মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

720*1520 পিক্সেল এইচডি প্লাস 6.22 ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি টেকনোলজির ডিসপ্লে ব্যবহৃত হয়েছে মোবাইলটিতে। ডিসপ্লে সুরক্ষা দেয়ার জন্য মোবাইলটিতে ব্যবহৃত হয়েছে কর্নিং গরিল্লা গ্লাস 3। 

4230 এমএইচ নন-রিমুভাল লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি রয়েছে এই মোবাইলটিতে। ব্যাটারি চার্জিং সুবিধা দেওয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়নি কোন ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

Oppo A12 ফিচারসঃ

  • 3 জিবি রেম ও 32 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ। এবং 4 জিবি রেম ও 64 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ।
  • 4230 এমএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি।
  • মিডিয়াটেক হেলিও p35 চিপসেট।
  • 6.22 ইঞ্চি এইচডি প্লাস ডিসপ্লে।
  • ওজন 156 গ্রাম।
  • অ্যান্ড্রয়েড 9 অপারেটিং সিস্টেম।
  • ফাস্ট চার্জিং সুবিধা নেই।

3.Oppo A15


অপ্পো এই মোবাইলটির বডি তৈরি হয়েছে প্লাস্টিক দিয়ে। প্লাস্টিক বডি হওয়ায় মোবাইলটির ওজন মাত্র 175 গ্রাম। বাংলাদেশ বাজারে এই মোবাইলের মূল্য 10 হাজার 990 টাকা।

মোবাইলটিতে সিকিউরিটি সুবিধা দেওয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট এবং ফেসলক।

অ্যান্ড্রয়েড 10 অপারেটিং(কালার ওএস 7) সিস্টেম ব্যবহৃত হয়েছে। এবং সাথে ব্যবহৃত হয়েছে মিডিয়াটেক হেলিও P35 চিপসেট। আরো রয়েছে 2.35 গিগাহার্জ অক্টাকোর প্রসেসর।

রেম হিসেবে মোবাইলটিতে ব্যবহৃত হয়েছে 3 জিবি রেম এবং সাথে রয়েছে 32 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ।

ব্যাটারি হিসেবে মোবাইলটিতে ব্যবহৃত হয়েছে নন রিমুভাল 4230 এমএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। ফাস্ট চার্জিং সুবিধা দেওয়ার জন্য মোবাইলটিতে ব্যবহৃত হয়েছে 10 ওয়াট ফাস্ট চার্জার।

পিছনের ক্যামেরা হিসেবে রয়েছে তিনটি 13+2+2 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। পিডিএফ, এলইডি ফ্ল্যাশ, এইচডিআর, ‌‌ড্রিফ্থ সেন্সর, ম্যাক্রো ও প্রোট্রাইট ইত্যাদি ফিচারস রয়েছে পিছনের ক্যামেরা হিসেবে। পিছনের ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও রেকর্ডিং করা যাবে 1080 পিক্সেলে।


মোবাইলটির সামনে ক্যামেরা হিসেবে রয়েছে মাত্র 5 মেগাপিক্সেল এর একটি ক্যামেরা। ভিডিও রেকর্ডিং করার ক্ষেত্রে সামনের ক্যামেরা দিয়ে 1080 পিক্সেল পর্যন্ত করা যাবে।

6.52 ইঞ্চি এইচডি প্লাস রেজুলেশনের 720*1560 পিক্সেল(269ppi) আইপিএস টেকনোলজির ডিসপ্লে ব্যবহৃত হয়েছে মোবাইলটিতে। এছাড়া ডিসপ্লে সুরক্ষা দেয়ার জন্য নেই কোনো সুবিধা। ডিসপ্লে ফিচারস হিসেবে রয়েছে মাল্টিটাচ সুবিধা।

Oppo A15 ফিচারসঃ

  • 3 জিবি রেম ও 32 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ।
  • 4230 এমএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি।
  • মিডিয়াটেক হেলিও p35 চিপসেট।
  • 6.52 ইঞ্চি এইচডি প্লাস ডিসপ্লে।
  • ওজন 175 গ্রাম।
  • অ্যান্ড্রয়েড 10 অপারেটিং সিস্টেম।
  • 10 ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

4.Oppo A15S

প্লাস্টিক বডি দিয়ে তৈরি হওয়ায় এই মোবাইলটির ওজন 177 গ্রাম। বাংলাদেশ বাজারে এই মোবাইলের মূল্য 12 হাজার 990 টাকা।

অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড 10(কালার ওএস 7.2). চিপসেট হিসেবে রয়েছে মিডিয়াটেক হেলিও P35 12nm চিপসেট। 2.35 গিগাহার্জ অক্টাকোর প্রসেসর রয়েছে এই মোবাইলটির প্রসেসর হিসেবে।

রেম হিসেবে মোবাইলটিতে ব্যবহৃত হয়েছে 4 জিবি রেম এবং সাথে রয়েছে 64 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ। এক্সটার্নাল এসডি কার্ডের মাধ্যমে সর্বোচ্চ 256 জিবি পর্যন্ত সাপোর্ট যোগ্য।

13+2+2 মেগাপিক্সেলের তিনটি ক্যামেরা ব্যবহৃত হয়েছে পিছনে ক্যামেরা হিসেবে। পিডিএফ, এলইডি ফ্ল্যাশ, ড্রিফ্থ সেন্সর, ম্যাক্রো ও এইচডিআর ইত্যাদি ফিচারস রয়েছে পিছনের ক্যামেরা হিসেবে। 1080 পিক্সেলে ভিডিও করা যাবে পিছনের ক্যামেরা দিয়ে।

একটিমাত্র ক্যামেরা হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে সামনের ক্যামেরা হিসেবে। সামনের ক্যামেরা হিসেবে রয়েছে 8 মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। 1080 পিক্সেলে ভিডিও করা যাবে সামনের ক্যামেরা দিয়ে।

ব্যাটারি চার্জিং সুবিধা দেওয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়েছে 10 ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা। 4230 এমএইচ নন-রিমুভাল লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি রয়েছে এই মোবাইলটিতে।

ডিসপ্লে সুরক্ষা দেয়ার জন্য নেই কোনো সুবিধা। 720*1600 পিক্সেল এইচডি প্লাস 6.52 ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি টেকনোলজির ডিসপ্লে ব্যবহৃত হয়েছে মোবাইলটিতে।

Oppo A15S ফিচারসঃ

  • 4 জিবি রেম ও 64 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ।
  • 4230 এমএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি।
  • মিডিয়াটেক হেলিও p35 চিপসেট।
  • 6.52 ইঞ্চি এইচডি প্লাস ডিসপ্লে।
  • ওজন 177 গ্রাম।
  • অ্যান্ড্রয়েড 10 অপারেটিং সিস্টেম।
  • 10 ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

5.Oppo A33

অপ্পো এই মোবাইলটির বডি তৈরি হয়েছে প্লাস্টিক দিয়ে। প্লাস্টিক বডি হওয়ায় মোবাইলটির ওজন মাত্র 186 গ্রাম। বাংলাদেশ বাজারে এই মোবাইলের মূল্য 13 হাজার 990 টাকা।

মোবাইলটিতে সিকিউরিটি সুবিধা দেওয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট এবং ফেসলক।

6.5 ইঞ্চি এইচডি প্লাস রেজুলেশনের 720*1600 পিক্সেল আইপিএস টেকনোলজির ডিসপ্লে ব্যবহৃত হয়েছে মোবাইলটিতে। এছাড়া ডিসপ্লে সুরক্ষা দেয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়েছে কর্নিং গরিল্লা গ্লাস 3। ডিসপ্লে ফিচারস হিসেবে রয়েছে মাল্টিটাচ ও 90 হার্জ রিফ্রেশ রেট সুবিধা সুবিধা।

রেম হিসেবে মোবাইলটিতে ব্যবহৃত হয়েছে 3 জিবি রেম এবং সাথে রয়েছে 32 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ। এছাড়া এক্সটার্নাল এসডি কার্ডের মাধ্যমে স্টোরেজ আরো বাড়ানো যাবে।

পিছনের ক্যামেরা হিসেবে রয়েছে তিনটি মাত্র 13+2+2 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এলইডি ফ্ল্যাশ, এইচডিআর, প্রোট্রাইট ইত্যাদি ফিচারস রয়েছে পিছনের ক্যামেরা হিসেবে। পিছনের ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও রেকর্ডিং করা যাবে 1080 পিক্সেলে।

মোবাইলটিতে সিকিউরিটি সুবিধা দেওয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট এবং ফেসলক।

মোবাইলটির সামনে ক্যামেরা হিসেবে রয়েছে মাত্র 8 মেগাপিক্সেল এর একটি ক্যামেরা। ভিডিও রেকর্ডিং করার ক্ষেত্রে সামনের ক্যামেরা দিয়ে 1080 পিক্সেল পর্যন্ত করা যাবে।

ব্যাটারি হিসেবে মোবাইলটিতে ব্যবহৃত হয়েছে নন রিমুভাল 5000 এমএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। ফাস্ট চার্জিং সুবিধা দেওয়ার জন্য মোবাইলটিতে ব্যবহৃত হয়েছে 18 ওয়াট ফাস্ট চার্জার।

অ্যান্ড্রয়েড 10 অপারেটিং(কালার ওএস 7.2) সিস্টেম ব্যবহৃত হয়েছে। এবং সাথে ব্যবহৃত হয়েছে কোয়ালকম স্নাপড্রাগণ 460 চিপসেট। আরো রয়েছে 1.8 গিগাহার্জ অক্টাকোর প্রসেসর।

Oppo A33 ফিচারসঃ

  • 3 জিবি রেম ও 32 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ।
  • 5000 এমএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি।
  • কোয়ালকম স্নাপড্রাগণ 460 চিপসেট।
  • 6.5 ইঞ্চি এইচডি প্লাস ডিসপ্লে।
  • ওজন 186 গ্রাম।
  • অ্যান্ড্রয়েড 10 অপারেটিং সিস্টেম।
  • 18 ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।
  • ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও ফেসলক সুবিধা।

6.Oppo F19


অপ্পো এই মোবাইলটির বডি তৈরি হয়েছে প্লাস্টিক দিয়ে। প্লাস্টিক বডি হওয়ায় মোবাইলটির ওজন মাত্র 175 গ্রাম। বাংলাদেশ বাজারে এই মোবাইলের মূল্য 21 হাজার 990 টাকা।

ব্যাকাপ সুবিধা দেওয়ার জন্য মোবাইলটিতে ব্যবহৃত হয়েছে নন রিমুভাল 5000 এমএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। ফাস্ট চার্জিং সুবিধা দেওয়ার জন্য মোবাইলটিতে ব্যবহৃত হয়েছে 33 ওয়াট ফাস্ট চার্জার।

মোবাইলটিতে রেম হিসেবে রয়েছে 6 জিবি রেম এবং সাথে রয়েছে 128 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ। এছাড়া এক্সটার্নাল এসডি কার্ডের মাধ্যমে স্টোরেজ আরো বাড়ানো যাবে।

ভিডিও রেকর্ডিং করার ক্ষেত্রে 1080 পিক্সেলে ভিডিও করা যাবে পিছনের ক্যামেরা দিয়ে। পিছনের ক্যামেরা হিসেবে রয়েছে তিনটি 48+2+2 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এলইডি ফ্ল্যাশ, এইচডিআর, প্রোট্রাইট ইত্যাদি ফিচারস রয়েছে পিছনের ক্যামেরা হিসেবে।

মোবাইলটির সামনে ক্যামেরা হিসেবে রয়েছে মাত্র 16 মেগাপিক্সেল এর একটি ক্যামেরা। ভিডিও রেকর্ডিং করার ক্ষেত্রে সামনের ক্যামেরা দিয়ে 1080 পিক্সেল পর্যন্ত করা যাবে।

অ্যান্ড্রয়েড 11 অপারেটিং(কালার ওএস 11.1) সিস্টেম ব্যবহৃত হয়েছে। এবং সাথে ব্যবহৃত হয়েছে কোয়ালকম স্নাপড্রাগণ 662 11nm চিপসেট। আরো রয়েছে 2.0 গিগাহার্জ অক্টাকোর প্রসেসর। জিপিও হিসেবে রয়েছে অ্যাড্রিনো 610।

এইচডি প্লাস রেজুলেশনের 1080 x 2400 ‌‌পিক্সেল ও 6.43 ইঞ্চি এফএইচডি প্লাস টেকনোলজি এমোলেড ডিসপ্লে ব্যবহৃত হয়েছে মোবাইলটিতে। ডিসপ্লে সুরক্ষা দেয়ার জন্য নেই কোনো সুবিধা। ডিসপ্লে ফিচারস হিসেবে রয়েছে মাল্টিটাচ ও 60 হার্জ রিফ্রেশ রেট সুবিধা।

Oppo F19 ফিচারসঃ

  • 6 জিবি রেম ও 128 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ।
  • 5000 এমএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি।
  • কোয়ালকম স্নাপড্রাগণ 662 11nm চিপসেট।
  • 6.43 ইঞ্চি এফএইচডি প্লাস ডিসপ্লে।
  • ওজন 175 গ্রাম।
  • অ্যান্ড্রয়েড 11 অপারেটিং সিস্টেম।
  • 33 ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

7.Oppo F19 Pro


প্লাস্টিক বডি দিয়ে তৈরি হওয়ায় এই মোবাইলটির ওজন 172 গ্রাম। বাংলাদেশ বাজারে এই মোবাইলের মূল্য 28 হাজার 990 টাকা।

মোবাইলটিতে রেম হিসেবে রয়েছে 8 জিবি রেম এবং সাথে রয়েছে 128 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ। এছাড়া এক্সটার্নাল এসডি কার্ডের মাধ্যমে স্টোরেজ আরো বাড়ানো যাবে।

অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড 11(কালার ওএস 11.1). চিপসেট হিসেবে রয়েছে মিডিয়াটেক হেলিও P95 12nm চিপসেট। 2.2 গিগাহার্জ অক্টাকোর প্রসেসর রয়েছে এই মোবাইলটির প্রসেসর হিসেবে।

4310 এমএইচ নন-রিমুভাল লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি রয়েছে এই মোবাইলটিতে। ব্যাটারি চার্জিং সুবিধা দেওয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়েছে 30 ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

মোবাইলটিতে সিকিউরিটি সুবিধা দেওয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়েছে ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট এবং ফেসলক।


একটিমাত্র ক্যামেরা হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে সামনের ক্যামেরা হিসেবে। সামনের ক্যামেরা হিসেবে রয়েছে 16 মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

48+8+2+2 মেগাপিক্সেলের চারটি ক্যামেরা ব্যবহৃত হয়েছে পিছনে ক্যামেরা হিসেবে। পিডিএফ, এলইডি ফ্ল্যাশ, ড্রিফ্থ সেন্সর ও এইচডিআর ইত্যাদি ফিচারস রয়েছে পিছনের ক্যামেরা হিসেবে। 2160 পিক্সেলে ভিডিও করা যাবে পিছনের ক্যামেরা দিয়ে।

1080 x 2400 পিক্সেল ফুল এইচডি প্লাস 6.43 ইঞ্চি সুপার এমোলেড টেকনোলজির ডিসপ্লে ব্যবহৃত হয়েছে মোবাইলটিতে। ডিসপ্লে সুরক্ষা দেয়ার জন্য মোবাইলটিতে ব্যবহৃত হয়নি কোন ধরনের সুবিধা। ডিসপ্লে ফিচারস হিসেবে থাকছে 60 রিফ্রেশ রিফ্রেশ রেট ও 800 নিটস ম্যাক্স ব্রাইটনেস।

Oppo F19 Pro ফিচারসঃ

  • 8 জিবি রেম ও 128 জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ।
  • 4310 এমএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি।
  • মিডিয়াটেক হেলিও P95 12nm চিপসেট।
  • 6.43 ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে।
  • ওজন 172 গ্রাম।
  • অ্যান্ড্রয়েড 11 অপারেটিং সিস্টেম।
  • 30 ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

শেষ কথা

আশা করি আজকের এই আর্টিকেলটির মাধ্যমে ‌‌অপ্পো মোবাইল দাম বাংলাদেশ ২০২১ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন।

এই আর্টিকেলটিতে ব্যবহৃত মোবাইল গুলোর দাম যেকোনো সময় পরিবর্তন হতে পারে। একটি মোবাইল কিনার পূর্বে অবশ্যই প্রসেসর, ব্যাটারী, ক্যামেরা ও ডিসপ্লের দিকে খেয়াল রেখে কিনবেন।
Sharif ahmed
Sharif ahmed ব্লগিং করা আমার স্বপ্ন। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে বাংলায় টেকনোলজি নিয়ে ব্লগিং শুরু করেছি।

Post a Comment for "অপ্পো মোবাইল দাম বাংলাদেশ ২০২১"